আক্রমণের আগে করণীয়ঃ
১। জমিতে অতিরিক্ত ইউরিয়া সার বা এলোপাথারি বালাই নাশক ব্যবহার না করা;
২। সঠিক দূরত্বে সঠিক বয়সের চারা রোপন করুন;
৩। চারা লাগানোর পরপরই জমিতে পর্যাপ্ত পরিমানে  খুঁটি পুতে দিন যাতে সেখানে পাখি বসে পোকা খেতে পারে;
৪। মাটি পরীক্ষা করে জমিতে সুষম সার দিন


আক্রমণের পরে করণীয়ঃ
১। প্রাথমিক অবস্থায় পোকার ডিম বা কীড়াসহ পাতা সংগ্রহ করে ধ্বংস করা;
২। আলোক ফাঁদের সাহায্যে পূর্ণবয়স্ক মথ ধরে মেরে ফেলা;
৩। জমিতে ডালপালা পুঁতে পোকাখেকো পাখির সাহায্যে পূর্ণ বয়স্ক মথ দমন করা;
৪। শতকরা ২৫ ভাগ পাতার ক্ষতি হলে অনুমোদিত কীটনাশক ব্যবহার করা। কীটনাশকের নাম উল্লেখ করা হলঃ"উইন্ড" ১৬ লিঃ ৩২গ্রাম অথবা রাইডার প্লাস ১০গ্রাম ১৬ লিটার পানিতে মিশিয়ে স্প্রে করা