লাউয়ের উৎপাদন প্রযুক্তি


মাটি


          লাউ প্রায় সব ধরণের মাটিতে জন্মে। তবে প্রধানত দোআঁশ থেকে এটেল দোআঁশ মাটি লাউ চাষের জন্য উত্তম।


জলবায়ু


          লাউ সাধারণত দিবস নিরপেক্ষ লতানো উদ্ভিদ, ফলে বছরের অধিকাংশ সময় চারা লাগিয়ে ফসল উৎপাদন করা যায়।


বীজ বপন ও চারা উৎপাদন


          লাউ চাষের জন্য পলিথিন ব্যাগে চারা তৈরি করাই উত্তম। এতে বীজের খরচ কম পড়ে। পলিথিন ব্যাগে চারা উৎপাদন করে রোপণ করলে হেক্টরপ্রতি ৮০০-১০০০ গ্রাম বীজের প্রয়োজন হয়।


বীজ বপণের সময়


          শীতকালীন চাষের জন্য মধ্য ভাদ্র থেকে মধ্য কার্তিক  (সেপ্টেম্বর -অক্টোবর) মাসে বীজ বপন করা যেতে পারে। তবে আগাম শীতকালীন ফসলের জন্য ভাদ্রর ১ম সপ্তাহে বীজ বুনতে হবে।


জমি তৈরি


          আমাদের দেশে প্রধানত বসতাবাড়ির আশে পাশে যেমন-গোয়াল ঘরের কিনারায় বা পুকুর পাড়ে ২-৩টি লাউ গাছ লাগানো  হয়ে থাকে। বেশি পরিমাণ জমিতে লাউয়ের চাষ করতে হলে প্রথমে জমি ভালভাবে চাষ ও মই দিয়ে প্রস্ত্তত করতে হবে।


চারা রোপণ


          লাউ চাষের জন্য ২x২ মি দূরত্ব প্রতি মাদায় ৪-৫ টি বীজ বোনা উচিত। রবি মৌসুমে লাউ মাচা বিহীন অবস্থায়ও চাষ করা যায়। তবে মাচায় ফলন বেশি হয়। এ ছাড়া পানিতে ভাসমান কচুরীপানার স্ত্তপে মাটি দিয়ে বীজ বুনেও সেখানে লাউ জন্মানো যেতে পারে।


 


অন্তর্বর্তীকালীন পরিচর্যা


          নিয়মিত গাছের গোড়ায় পানি  সেচব দেওয়া, মাটির চটা ভাঙ্গা, বাউনী  দেওয়া ও অন্যান্য পরিচর্যা করা বাঞ্ছনীয়। মাচা শক্ত করে বাঁধতে হবে।


r